স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে মাদকবিরোধী প্রচারণা বাড়াতে হবে : স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী

বিশেষ (ঢাকা) প্রতিনিধি: মাদকের নেতিবাচক প্রভাব পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্র সবখানেই লক্ষ্য করা যাচ্ছে বলে উল্লেখ করেছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. রোকেয়া সুলতানা। তিনি বলেন, প্রত্যেক স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে মাদকবিরোধী প্রচারণা বাড়াতে হবে, প্রতিরোধে জোর দিতে হবে।
মঙ্গলবার (৯ জুলাই) সকালে বারডেম হাসপাতাল মিলনায়তনে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার ও অবৈধ পাচার বিরোধী আন্তর্জাতিক দিবস-২০২৪ উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানের আয়োজন করে মাদকদ্রব্য ও নেশা নিরোধ সংস্থা মানস।
প্রতিমন্ত্রী ডা. রোকেয়া সুলতানা বলেন, কোনো বাবা-মা চান না তার সন্তান বিপদগামী হোক। পরিবারে একজন মাদকাসক্ত থাকলে পুরো পরিবার ধ্বংস হয়ে যায়। সমাজ তাদের ভিন্ন চোখে দেখে। একটা সময় ছিলো যখন পথশিশু, ছিন্নমূল মানুষদের মধ্যে মাদকাসক্তি বেশি ছিলো। কিন্তু বর্তমানে আমাদের শিক্ষিত শ্রেণীর মধ্যে মাদকাসক্তি সমস্যা বাড়ছে।
তিনি বলেন, দেশে মাদকের চিকিৎসায় উন্নতমানের রিহ্যাব সেন্টারের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। তবে এটাও লক্ষণীয় যে, চিকিৎসা নিয়ে অনেকে পুনরায় মাদকে আসক্ত হচ্ছে। তাই নিজেদের পরিবার ও সমাজ থেকে তামাক, মাদক সরিয়ে নিতে পারলে সমস্যা নিরসন সহজ হবে। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এসব কাজে সহায়তা করবে।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সুস্থ মানবসম্পদ গড়ে তুলতে মাদক নির্মূলের বিকল্প নেই। কিশোর-তরুণদের মাদক ও তামাকের নেশা থেকে দুরে রাখতে প্রতিরোধ কর্মসূচি জোরালো করতে হবে।
অনুষ্ঠানে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা, জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ, ইব্রাহীম মেডিকেল কলেজের শিক্ষকবৃন্দ ও শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন।
সংবাদ প্রেরক বিটিসি নিউজ এর বিশেষ (ঢাকা) প্রতিনিধি মো: আমিনুল ইসলাম শিকদার। #

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.