বাগাতিপাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচন: বিএনপি নেতা চেয়ারম্যান প্রার্থীর ওপর আওয়ামী লীগ প্রার্থীর কর্মীদের হামলা

নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চেয়ারম্যান প্রার্থী ও উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন মানিকের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। বর্তমানে জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
বুধবার সন্ধ্যায় বাগাতিপাড়া উপজেলার সোনাপুর বাজারে এই হামলার ঘটনা ঘটে।
চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক বলেন, নির্বাচনে তার প্রতিপক্ষ প্রার্থী এই আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সাবেক এমপি শহিদুল ইসলাম বকুলের বড়ভাই শরিফুল ইসলাম শরীফের কর্মী সমর্থকরা এই হামলা চালিয়েছেন।
জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক বলেন, মাগরিবের নামাজ শেষে উপজেলার সোনাপুর বাজারে লোকজনের সঙ্গে মতবিনিময় করার সময় তার প্রতিপক্ষ প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শরিফুল ইসলাম শরিফের সমর্থক সাবেক ইউপি সদস্য আবুল কালাম আজাদ ও তার লোকজন আমার ওপর চড়াও হয়। এরপর তারা রড ও চেয়ার দিয়ে মারধর শুরু করে। এসময় হামলাকারীদের হাত থেতে তাকে বাঁচাতে গিয়ে তার আরো ৪-৫ সমর্থক আহত হয়েছেন।
বাজারে অবস্থানকারী ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী দয়ারামপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহ আলম বলেন, মাগরিবের নামাজের পর জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক বাজারের লোকজনের সাথে মতবিনিময় করার সময় হঠাৎ করেই শরিফুল ইসলাম শরীফের কর্মী সমর্থকরা লোহার রড,লাঠি ও চেয়ার তুলে মানিক ও তার কর্মীদের মারপিট শুরু করে।
হামলার ঘটনার সত্যতা বিটিসি নিউজকে নিশ্চিত করে বাগাতিপাড়া থানার ওসি নান্নু খান বলেন, খবর পাওয়ার পরপরই আমরা ঘটনাস্থলে যাই। স্থানীয়দের মাধ্যমে জানতে পেরেছি, চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহাঙ্গীর হোসেন মানিকের ওপর হামলা চালিয়েছে অপর চেয়ারম্যান প্রার্থী শরিফুল ইসলামের লোকজন। হামলার পরপরই হামলাকারীরা পালিয়ে গেছে।
জাহাঙ্গীর হোসেন মানিককে তার লোকজন চিকিৎসার জন্য নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে গেছেন। বর্তমানে এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।
এবিষয়ে নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নাটোরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. মাছুদুর রহমান বলেন, ঘটনাটি কিছু সময় আগে জেনেছি। নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বিঘ্নকারীদের বিরুদ্ধে অবশ্যই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সংবাদ প্রেরক বিটিসি নিউজ এর নাটোর প্রতিনিধি খান মামুন। #

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.