ব্রেকিং নিউজ

আজ- সোমবার, ২৯শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুলাই, ২০২০ ইং

শিরোনাম

  সস্ত্রীক নাটোরের গুরুদাসপুরের ইউএনওর করোনা সনাক্ত       শিবগঞ্জে করোনায় সামাজিক দূরুত্ব বজায় ও মাস্ক ব্যবহার না করায় ৬১ জনকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের জরিমানা       শিশুর প্রাণ বাঁচাতে অসহায় পরিবারের পাশে কুমিল্লার মানবিক পুলিশ সুপার       রাজশাহীর তানোরে সাংসদ ওমর ফারুক চৌধুরীর জমিতে টিএসসি কলেজের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন       কসবায় সংখ্যালঘু পরিবারের উপর হামলা, ভাংচুর লুটপাট ও জমি দখলের চেস্ট্রা       উজিরপুরের মুন্ডপাশায় ১৫মন ওজনের ফ্রিজিয়ান গরুর সন্ধ্যান মিলল       হবিগঞ্জে কুশিয়ারার পানি বিপদসীমার উপরে       উজিরপুরে দলিলকৃত জমিতে ৫০ বছরেও ভোগদখলে যেতে পারছেনা অসহায় রিক্সা চালকের পরিবার       তানোর থানায় ওসির নেতৃত্বে সকল অফিসার এবং ফোর্সদের মাঝে সার্জিক্যাল ক্যাপ ও মাক্স বিতরণ       নওহাট পৌর মেয়র মকবুল হোসেন’র ঈদগাহের সিসি ঢালাইয়ের কাজ উদ্বোধন       এলাকা ছাড়া বাদীর পরিবার নবীগঞ্জে ধর্ষণ মামলা তদন্তকালে সন্তান প্রসব ॥ এলাকায় উত্তেজনা       বাগাতিপাড়ায় কলেজ শিক্ষক মহররম হত্যার বিচার দাবীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন       হবিগঞ্জ অনলাইন প্রেসক্লাবের বার্ষিক মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত       হবিগঞ্জে আরও ১০ জনের করোনা শনাক্ত       নাটোরে ভ্রাম্যমান আদালতের ৫ জনের জরিমানা ও ২হাজার মিটার কারেন্ট জাল জব্দ       ব্রহ্মপুত্র নদে পানি বৃদ্ধি রৌমারীতে দ্বিতীয় দফায় বন্যা, বানবাসিদের দূর্ভোগ    

ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অফিসে আসতে হবে না : ফরহাদ হোসেন

ফাইল ছবি

বিটিসি নিউজ ডেস্ক: করোনা ভাইরাস বা কোভিড-১৯ সংক্রমণের জন্য যেসব এলাকা ঝুঁকিপূর্ণ সেসব এলাকার কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরকে অফিসে আসতে নিষেধ করা হয়েছে। 

আজ বুধবার (০৩ জুন) গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। বর্তমান পরিস্থিতির উন্নতি না হলেও গত ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত নানা নির্দেশনা মানা সাপেক্ষে সরকারী অফিস খুলে দেয়া হয়েছে।

ফরহাদ জানান, ২৫ শতাংশের বেশী কর্মকর্তাদের অফিসে আসার দরকার নেই। বাকিরা বাসায় থেকে কাজ করবেন। তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী যারা ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা বা রেড জোনে বসবাস করেন তাদের আপাতত সচিবালয়ে আসার দরকার নেই। করোনায় যেসব এলাকা ঝুঁকিপূর্ণ সেসব এলাকাকে লাল, হলুদ ও নীল জোনে চিহ্নিত করার কাজ চলছে বলে উল্লেখ করেন প্রতিমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘ঢাকা, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুরকে আমরা রেড জোন বলছি। তবে ঢাকায় সব এলাকায় সংক্রমণের হার কমবেশি রয়েছে। রেড জোনকেও ছোট ছোট এলাকায় ভাগ করা হবে। তা নাহলে তো কার্যক্রম থমকে যাবে। কোথায় কতজন আক্রান্ত আছে সেটা ম্যাপিং করে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ একটি ম্যাপ জমা দিয়েছে। প্রতিদিন পরিস্থিতির সঙ্গে ম্যাপও পরিবর্তন হবে। আক্রান্ত পরিস্থিতি অনুযায়ী ম্যাপের বিভিন্ন এলাকা রেড হবে, ইয়োলো হবে, গ্রিন হবে। সফটওয়্যারটা রেডি। এখন ডিসিশনটা নিয়ে আজ-কালকের মধ্যে বাস্তবায়ন কাজ শুরু হয়ে যাবে। #

Comments are closed.