আজ- মঙ্গলবার, ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম

  করোনাকালে মরুভূমিতে বসিয়ে রাখা হয়েছে অসংখ্য বিমান       সবুজ বাংলাদেশ সুবর্ণচর শাখার ঈদপূর্ণমিলন ও পরিচিত সভা এবং বৃক্ষরোপন কর্মসূচি       তিস্তায় বাঁধ নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন       রাজ্যে লকডাউন’র দিন বদল, নতুন তালিকা প্রকাশ করল নবান্ন       করোনাকালে দেশের রেমিট্যান্স ও রিজার্ভে রেকর্ড       নেপালে আবারও ভূমিধসে ১০ জন’র মৃত্যু       ইংল্যান্ড দল’র ব্যাটিং কোচ’র দায়িত্ব পেলেন ট্রট       শান্তিতে নোবেলজয়ী জন হিউম’র প্রয়াণ       ভ্রমণ পিয়াসীদের পদচারণায় ৫ মাস পরে মুখরিত হয়ে উঠেছে রাজশাহীর চিড়িয়াখানা ও পদ্মাপাড়       নবীগঞ্জে করোনায় মারা গেলেন চিত্তরঞ্জন দাশ       উজিরপুরে মসজিদ কমিটিকে কেন্দ্র করে যুবলীগ সম্পাদকসহ আহত ৫       বাগেরহাটে ইয়াবাসহ দু’বোনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ       রাজশাহীতে লুকু-কালুর জুয়ার আসরে পুলিশের অভিযান, কালুসহ-১২ জুয়াড়ী আটক       নাগেশ্বরীতে শহীদ সাফাত সড়কের নামফলক উন্মোচন        উজিরপুরে জুয়াড়ী রফিক গণধোলাইয়ের শিকার       আফগানিস্তান কারাগারে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত-২১, আহত-৪৩    

কুমিল্লায় ভূয়া ডিআইজি ফখরুউদ্দিন গ্রেফতার!

কুমিল্লা ব্যুরো: কখনো ডিআইজি-কখনো এসপি পরিচয়ে সাধারণ মানুষের কাছ হতে কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে ফখরুউদ্দিন মোহাম্মদ আজাদ নামে এক প্রতারককে আটক করেছে কুমিল্লা জেলা পুলিশ।

গতকাল সোমবার রাতে তাকে ঢাকার খিলগাঁও থেকে আটক করে পুলিশের একটি বিশেষ টিম। এসময় তার সহযোগী ও গাড়ি চালক রুবেলকে আটক করা হয় এবং প্রতারকের ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার জব্দ করে পুলিশ।

আজ মঙ্গলবার পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান কুমিল্লা জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম।

পুলিশ সুপার জানান, ফখরুউদ্দিন মোহাম্মদ আজাদ দীর্ঘদিন যাবত ডিআইজি, এসপিসহ পুলিশের বিভিন্ন কর্মকর্তার পরিচয় দিয়ে প্রতারনা করে আসছিলো।

এ পর্যন্ত অন্তত ১১ জন তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধরনের প্রতারণার অভিযোগ করেছে। এই প্রেক্ষিতে কুমিল্লা জেলা পুলিশ তাকে আটক করে। পুলিশের পরিচয় দিয়ে পুলিশে চাকরি দেয়া ও বদলিসহ নানান কাজ করে দেবার প্রতিশ্রুতিতে এসব টাকা নেয় ফখরুদ্দিন।

ব্যক্তি ও পরিবেশ বিবেচনায় কখনো ডিআইজি, কখনো এসপির পরিচয় দেয় প্রতারক আজাদ। ১৯৯১ সালে ফখরুউদ্দিন সাব-ইন্সপেক্টে হিসেবে যোগ দিলেও ঘুষ গ্রহনের অভিযোগে সে চাকরি হারায়।

২০০০ সালে ডিবি পুলিশের পরিচয়ে ছিনতাইকালেও গ্রেফতার হয়। জামিন পেয়ে সে আবারো প্রতারণা কর্মকান্ড চালায়। তার বিরুদ্ধে আইনী কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

প্রতারক ফখরুউদ্দিন কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার বাকুই গ্রামের মৃত আবদুল হামিদের ছেলে।

পুলিশের অভিযানে ফখরুউদ্দিনের খিলগাঁওয়ের বাসা থেকে পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তার পোষাক পরিহিত ছবি, ব্যবহৃত ভুয়া সিল-অফিসিয়াল ডকুমেন্ট উদ্ধার করা হয়েছে।

সংবাদ প্রেরক বিটিসি নিউজ এর কুমিল্লা ব্যুরো আব্দুল্লাহ আল মানছুর। #

Comments are closed.