আল্লামা ইকবালের সমাধিতে ইরানের প্রেসিডেন্টের শ্রদ্ধা

বিটিসি আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) লাহোরে পৌঁছে প্রাচ্যের কবি আল্লামা মুহাম্মদ ইকবালের সমাধি পরিদর্শন করেছেন। আল্লামা ইকবাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী মরিয়ম নওয়াজ তাকে স্বাগত জানান।
জিয়ারতকালে রাইসি বলেন, আল্লামা ইকবালের ব্যক্তিত্ব আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ঔপনিবেশিকতার বিরুদ্ধে কীভাবে দাঁড়াতে হবে তার বার্তা দিয়েছেন তিনি।
রাইসি আরও বলেন, তিনি পাকিস্তানে ‘বিচ্ছিন্ন’ বোধ করেননি। কারণ, ইরানের সঙ্গে পাকিস্তানের জনগণের বিশেষ সখ্যতা রয়েছে।
একটি জনসমাবেশে ভাষণ দেওয়ার ইচ্ছা থাকলেও কিছু কারণে তা সম্ভব হয়নি উল্লেখ করে রাইসি বলেন, পাকিস্তান ও ইরানের হৃদয় সবসময় একসঙ্গে সংযুক্ত থাকবে। গাজা নিয়ে নীতিগত অবস্থানের জন্য পাকিস্তানের প্রশংসা করেন রাইসি। তিনি বলেন, ইসরায়েলের সঙ্গে যুদ্ধে ফিলিস্তিনিরাই সফল হবে।
পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরিফসহ দেশটির শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনা করার কথা রয়েছে রাইসির। জানুয়ারিতে পাকিস্তান ও ইরান পরস্পরের ওপর পাল্টাপাল্টি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করেছিল। ধারণা করা হচ্ছে, সেই বিরোধের মীমাংসা করতেই রাইসির এই সফর। পাকিস্তানের সঙ্গে ইরানের অর্থনৈতিক, সীমান্ত ও জ্বালানি সম্পর্ক জোরদার করা রাইসির এই সফরের প্রধান লক্ষ্য।
স্থানীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, রাইসি পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জেনারেল আসিম মুনিরের সঙ্গেও দেখা করবেন।
সোমবার ইরানের প্রেসিডেন্ট কার্যালয় থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান প্রতিবেশীর সঙ্গে সুসম্পর্কের নীতির ভিত্তিতে পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে আগ্রহী। এই সফরে অর্থনৈতিক, বাণিজ্যিক, জ্বালানি ও সীমান্ত সমস্যাসহ পাকিস্তান সরকারের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করা হবে।’
এর আগে রবিবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে ইরানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নয়নের আহ্বান জানানো হয়। #

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.